আইএস যোগে দুই বাংলাদেশি ধৃত মালয়েশিয়ায়

image (1).jpgআইএসের সঙ্গে জড়িত সন্দেহে দুই বাংলাদেশি-সহ চার জনকে গ্রেফতার করেছে মালয়েশিয়া পুলিশের বিশেষ সন্ত্রাসবিরোধী বিভাগ। গত ১৩ থেকে ১৯ জানুয়ারির মধ্যে বিশেষ অভিযান চালিয়ে সে রাজধানী কুয়ালালামপুর এবং সাবাহ থেকে ওই চারজনকে ধরা হয়। দুই বাংলাদেশি বাদে বাকি দু’জনের একজন ফিলিপিনো এবং আর এক জন মালয়েশিয়ারই নাগরিক। ধৃতদের সবারই বয়েস ২৭ থেকে ৩১-এর মধ্যে। এদের মধ্যে এক মহিলাও আছে।

মালয়েশিয়া পুলিশের আইজি তান শ্রী খালিদ আবু বকর জানিয়েছেন, “মাহমুদ আহমদ ও ইসনিলন হ্যাপিলন নামে দু’জনের নেতৃত্বে ফিলিপিন্সে সক্রিয় আছে আইএসের একটি শাখা। ওই চারজন দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া ও দক্ষিণ এশিয়ার সন্ত্রাসীদের জন্য মালয়েশিয়ার সাবাহকে এক্সিট জোন বানানোর কাজ করছিল। এই পথ ব্যবহার করে ফিলিপিন্সের আইএস শাখায় যোগদান সহজ করতে চেয়েছিল তারা। কিন্তু পুলিশ সেই শাখাকে ধ্বংস করেছে।”
মালয়েশিয়ার পুলিশ জানাচ্ছে, সন্দেহভাজন ফিলিপিনোকে গত ১৩ জানুয়ারি মালয়েশিয়ার সাবাহর কোতা কিনাবালু এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়। ওই ব্যক্তি একজন ঘড়ি বিক্রেতা। সে মাহমুদের নির্দেশে মালয়েশিয়া, ইন্দোনেশিয়া, বাংলাদেশি নাগরিকদের এবং সেইসঙ্গে মায়ানমারের রোহিঙ্গাদের আইএসে নিয়োগের বিষয়টি দেখভাল করত। ওই দিন একই এলাকা থেকে ধরা হয় ২৭ বছর বয়সী মালয়েশীয় মহিলাকে। এর পর গত বৃহস্পতিবার, ১৯ জানুয়ারি, কুয়ালালামপুর থেকে গ্রেফতার করা হয় দুই বাংলাদেশিকে। এরা সেখানে সেলসম্যানের কাজ করত। আইএস-পন্থী বাংলাদেশির সঙ্গে ঘনিষ্ঠ যোগাযোগ ছিল এদের।

Advertisements