আবারও ফ্রান্সে “আল্লাহু আকবর” ধ্বনি দিয়ে শিরচ্ছেদ করে খুন।

আবারো একবার রক্তাক্ত হলো ফ্রান্স। সেই একই কায়দায় একই স্লোগান “আল্লাহু আকবর” বলতে বলতে নিসের এক গির্জার কাছে ছুরি হাতে নৃশংস হামলা চালাল এক ইসলামিক কট্টর জেহাদি । ঘটনায় তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। ছুরির কোপে এক মহিলার শিরচ্ছেদ করেছে ওই জেহাদি। পরপর এরকম নৃশংস ঘটনায় শিউরে উঠছে গোটা বিশ্ব।

বৃহস্পতিবার মেয়র ক্রিস্টিয়ান এস্ট্রোসি একটি টুইট করে জানান নিস শহরের নোটরেডাম গির্জার কাছে সকাল বেলা এক অজ্ঞাত পরিচয়ের ব্যক্তি ছুরি নিয়ে প্রার্থনারত নাগরিকদের উপর হটাৎ করে এলোপাথারি আক্রমণ করে , নৃশংস ভাবে খুন করে দুই পুরুষ সহ এক মহিলাকে ,মহিলাকে শিরচ্ছেদ করে খুন করা হয়। পুলিশ সূত্রে জানানো হচ্ছে তিন জন তৎক্ষণাৎ মারা গেলেও একাধিক সাধারণ নাগরিক আশঙ্কাজনক অবস্থায় বর্তমানে হাসপাতালে ভর্তি। আক্রমণকারী আক্রমণের সময় “আল্লাহু আকবর” ধ্বনি দিতে দিতে আক্রমণ করে ,ঠিক যেমন ভাবে হত্যা করা হয়েছিল শিক্ষক স্যামুয়েল প্যাটি কে। আক্রমণকারীকে তৎক্ষণাৎ পুলিশ গ্রেফতার করে বলে পুলিশ সূত্রে জানানো হচ্ছে।

এই ঘটনার পর পরই সম্পূর্ণ নিস শহরকে নিরাপত্তার চাদরে মুড়ে ফেলা হয়েছে, সন্দেহ করা হচ্ছে আরো বড় সন্ত্রাসবাদী হামলার। ফ্রেঞ্চ অ্য়ান্টি-টেরোরিস্ট প্রসিকিউটর্স ডিপার্টমেন্টের তরফে জানানো হয়েছে, এদিনের ভয়ংকর হামলার তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। বিবিসি কে দেওয়া একটি সাক্ষাৎ কারে ইন্টিরিওর মিনিস্টার গার্লড ডারম্যানিন শহরবাসীর কাছে আবেদন করেছেন ফ্রান্স এর এই শহর কে আপাতত এড়িয়ে চলতে। তিনি একটি জরুরি ভিত্তিক বৈঠক ডেকেছেন। তবে কি কারণে এই আক্রমণ তা এখনো ফ্রান্স সরকারের তরফ থেকে জানানো হয়নি।

প্রসঙ্গত বলা প্রয়োজন কিছুদিন আগে স্যামুয়েল প্যাটি নামের এক শিক্ষক ক্লাসে তার ছাত্রদের বাক স্বাধীনতার সমর্থনে পড়াতে গিয়ে মহম্মদের একটি ব্যঙ্গ চিত্র ব্যবহার করে। যার ফলস্বরূপ তার শিরচ্ছেদ করে হত্যা করে চেচেন বংশোদ্ভূত এক কট্টর মুসলিম যুবক। এই শিক্ষক কে সন্মান দিতে ও ইসলামের প্রতিবাদে বর্তমানে সমগ্র ফ্রান্স উত্তাল হয়ে উঠেছে। মহম্মদের যে ব্যঙ্গ চিত্রের জন্য খুন হতে হয়েছিল স্যামুয়েল প্যাটিকে সেই একই ব্যঙ্গ চিত্র এবার ফ্রান্সের বিভিন্ন শহরে প্রকাশ্যে প্রদর্শিত হচ্ছে এবং তা সম্পূর্ণ সরকারের সমর্থনে।

আগুনে ঘি ঢালার মতো এই ঘটনা ফ্রান্স এর আন্দোলন কে কোনদিকে নিয়ে যাবে তার উত্তর হয়তো লুকিয়ে রয়েছে ভবিষ্যৎ এর পাতায়।

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s