বিদ্যালয়ে সরস্বতী পূজার দাবিতে পথ অবরোধ ছাত্র-ছাত্রীদের, আক্রমন করলো মুসলিম দুষ্কৃতীরা

বিদ্যালয়ে সরস্বতী পূজার দাবিতে পথ অবরোধ ছাত্র-ছাত্রীদের, আক্রমন করলো মুসলিম দুষ্কৃতীরা

222বিগত প্রায় নয় বছর ধরে সরস্বতী পুজো বন্ধ বিদ্যালয়ে। বাধা সৃষ্টিকারীরা সকলে মুসলমান। ঘটনাটি উত্তর 24 পরগনা জেলার বসিরহাট মহকুমা হাড়োয়া ব্লকের শালিপুর অঞ্চলের চৌহাটা গ্রামের “চৌহাটা আদর্শ বিদ্যাপীঠ” এর। পশ্চিমবঙ্গের বুকে যেখানে ৭০% জনসংখ্যা হিন্দু অথচ সেই রাজ্যে স্কুলের বিদ্যালয়ে বিদ্যার আরাধ্যা দেবী সরস্বতী পুজো করা যাবে না। কারন যারা সংখ্যালঘু তারা আপত্তি করছে। স্থানীয় মুসলমানদের বক্তব্য স্কুলে যদি সরস্বতী পুজো করা হয় তাহলে মুসলমানদের ধর্মীয় অনুষ্ঠান “নবীদিবস” পালন করতে দিতে হবে। উল্ল্যেখ্য প্রতি শুক্রবার স্কুলে একঘন্টা টিফিন টাইম দেওয়া হয় মুসলিম ছাত্রদের নামাজ পড়ার জন্য।

এনিয়ে বহু বছর থেকে উভয় সম্প্রদায়ের মধ্যে বচসা চলছিল। ওই বিদ্যালয়ে মধ্যে কোনভাবেই সরস্বতী পুজো করতে দেবে না বলে অনড় মুসলমানরা। ছাত্র-ছাত্রীরা এবছর সরস্বতী পুজো করতে চায় বিদ্যালয়ে। এবিষয়ে একাধিক বার স্কুল কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছেন। কিন্তু স্কুল কর্তৃপক্ষ এই ব্যাপারে কোনও উদ্যোগ নিচ্ছে না বলে অভিযোগ। স্কুলের প্রধান শিক্ষকের দাবি, তিনি নতুন এসেছেন। তবে ছাত্রছাত্রীদের থেকে অভিযোগ পেয়ে তিনি বিদ্যালয় পরিচালন কমিটির কাছে আবেদন করেছিলেন। কিন্তু কোনও এক গন্ডগোলের জন্যই এই স্কুলে সরস্বতী পুজো বন্ধ হয়েছে। তাই নিরাপত্তার কারণেই এই স্কুলে সরস্বতী পুজোর উদ্যোগ নেওয়া যাচ্ছে না বলে জানিয়েছেন পরিচালন কমিটি।

বিদ্যালয়ে সরস্বতী পুজোর আয়োজন করতে হবে এই দাবিতে পড়ুয়ারা আজ বোয়ালঘাটা-কলুপুকুর রোডে অবরোধ করে। অবরোধ চলাকালীন আনুমানিক 700-800 মুসলমান চড়াও হয় পড়ুয়াদের উপর। লাঠি, দা, কুড়াল, শাবল নিয়ে তাণ্ডব চালায় চালায় বলে অভিযোগ। ছাত্রীদের শ্লীলতাহানির চেষ্টা করে বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন। মুসলমানদের এই আক্রমণের নেতৃত্বে ছিলো মসনদ মোল্লা ও খালেক মোল্লারা। এরা প্রত্যেকে রাজ্যের বর্তমান শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসের নেতা বলে পরিচিত এলাকায়। উল্লেখ্য বেশিরভাগ আক্রমণকারীরা বাইরের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে আসা বহিরাগত মুসলমান বলে জানা গেছে। ছাত্র-ছাত্রীদের পরিবারের পক্ষ থেকে স্থানীয় থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। তবে এখনো পর্যন্ত অভিযুক্তদের কাউকে গ্রেপ্তার করা হয়নি বলে জানা যায়।

 

2 Comments

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s