আবির খেলাকে কেন্দ্র করে বীরভূমের লাভপুরে মন্দির ভাঙচুর, হিন্দুদের ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপালো মুসলিমরা

হরিনাম সংকীর্তনের নগর পরিক্রমায় আবির ছোঁড়া নিয়ে হিন্দুরা মুসলিমদের আক্রমণের শিকার হলো। ভাঙার চেষ্টা করা হলো মন্দির। মুসলিম দুষ্কৃতীদের আক্রমণে তিনজন হিন্দু মহিলা সহ মোট সাতজন জখম হয়েছেন। তাদের মধ্যে দুজনকে গুরুতর অবস্থায় বোলপুর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বাকিদের চিকিৎসা চলছে লাভপুর গ্রামীণ হাসপাতালে। গত ১৬ই মে ঘটনাটি ঘটেছে বীরভূম জেলার লাভপুর থানার অন্তর্গত ছোটগোগা গ্রামে। জানা গিয়েছে, কয়েকদিন ধরেই ওই গ্রামে কীর্তন অনুষ্ঠান চলছিল। গত ১৬ই মে শেষ দিনে ধুলোট অনুষ্ঠান অর্থাৎ নগর পরিক্রমা  চলছিল। সেই অনুষ্ঠানে হিন্দুরা আবির খেলছিলেন নিজেদের মধ্যে। সেই আবির খেলার সময় রাস্তা দিয়ে যাওয়া এক মুসলমান মোটরবাইক আরোহীর গায়ে লাগে। তখন একটু খানি বচসা হয়। সেদিন বিষয়টি মিতে গেলেও পরেরদিন অর্থাৎ ১৭ই মে, শুক্রবার রাত্রে পশ্চিমপাড়ার একদল মুসলিম দুষ্কৃতী বাঁশ, লোহার রড, ধারালো অস্ত্র নিয়ে হিন্দু পাড়ায় আক্রমণ চালায়। বিজলি দত্ত নামে এক হিন্দু গৃহবধূকে বাড়ি থেকে টেনে বের করে এনে রাস্তায় ফেলে বেধড়ক মারধর করে ওই মুসলমান দুষ্কৃতীরা। মুসলিম দুষ্কৃতীদের মারে ওই মহিলা গুরুতর আহত হয়, তাঁর কোমর ভেঙে যায়। নিতাই দাস নামে আর এক হিন্দু গ্রামবাসীর হাত ভেঙে যায়। এছাড়াও, বেশ কয়েকজন হিন্দুকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপানো হয়। এছাড়াও, গ্রামের যে মন্দিরে হরিনাম সংকীর্তন চলছিল, সেই মন্দিরটিতে আক্রমণ করে ভাঙতে থাকে মুসলিমরা। এলাকা বাসীরা প্রতিবাদ করলে কয়েকজনকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপানো হয়।  এরপর ওই মুসলিম দুষ্কৃতীরা এলাকা ছেড়ে চলে যায়। ঘটনার আকস্মিকতা কাটিয়ে গ্রামবাসীরা আহতদের হাসপাতালে নিয়ে যান। গুরুত্বই অবস্থা যাদের ছিল, তাদের বোলপুরে রেফার করা হয়। বাকিদের লাভপুর গ্রামীণ হাসপাতালে চিকিৎসা চলছে।

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s