ইটাহারে রাজবংশী হিন্দুদের উচ্ছেদের চক্রান্ত, বাড়িতে আগুন দিলো মুসলিমরা

উত্তর দিনাজপুর জেলার ইটাহারের দুর্লভপুরে রাজবংশী হিন্দুদের তাদের বাসস্থান থেকে উচ্ছেদ করার জন্যে স্থানীয় মুসলিম দুষ্কৃতিরা হামলা চালালো তাদের ওপর। ঘটনাটি গত মঙ্গলবার ২০শে মার্চ, মঙ্গলবার দুপুরে ঘটে। স্থানীয় বাসিন্দারা জানিয়েছেন যে দুর্লভপুরে তিনটি রাজবংশী পরিবার -দিপু রায়, দীনেশ রায় ও মালতি রায় দীর্ঘদিন ধরে বসবাস করছে। ওই তিনটি পরিবারের ওই বসতবাড়ি ছাড়া আর অন্য কোনো জমিজমা নেই। ওদের পরিবার শ্রমিকের কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করে। কিন্তু স্থানীয় মুসলিমরা মাজাহারুল ইসলাম, মুস্তাফা আলীদের নেতৃত্বে মাসখানেক আগে ওই তিনটি পরিবারকে ওই জমি থেকে বাড়ি ঘর ছেড়ে চলে যেতে বলে। কিন্তু ওই মুসলিমরা জমির কোনো বৈধ কাগজপত্র দেখতে পারেনি। এ নিয়ে কোর্টে মামলাও হয়। সেই মামলা এখনও চলছে। কিন্তু তার মধ্যে গত মঙ্গলবার মুসলিমরা দলবেঁধে মাজাহারুল ইসলাম, মুস্তাফা আলীর নেতৃত্বে এসে ওই তিনটি রাজবংশী হিন্দুদের বাড়িতে হামলা চালায়, ঘরদোর ভাংচুর করে। তারপর বাড়ি তিনটিতে কেরোসিন তেল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয়। কিন্তু ঘটনার খবর পেয়ে স্থানীয় আসে-পাশের হিন্দুরা ছুটে আসে এবং মাজাহারুল ইসলাম ও আরো তিনজন মুসলিম দুষ্কৃতিকে ধরে ফেলে। তাদের প্রচুর মারধর করে এবং তাদের পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়। পরে ঘটনাস্থলে আসেন দুর্লভপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান মদন গোপাল বর্মন। তিনি নিঃস্ব হয়ে পড়া ওই তিনটি হিন্দু পরিবারের পাশে দাঁড়ানোর আশ্বাস দিয়েছেন। তবে এই  ঘটনায় এলাকার রাজবংশী হিন্দুদের মধ্যে যথেষ্ট ক্ষোভ থাকায় এলাকায় বিশাল সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s