হাসপাতালে হামলা করে জঙ্গি ছিনিয়ে নিয়ে গেল লস্কর-ই-তোইবা

Haspatale hamla kore jongiগতকাল ৬ই ফেব্রুয়ারী, মঙ্গলবার সকালে জম্মু-কাশ্মীরের হরি সিং হাসপাতালে দুঃসাহসিক হামলা চালিয়ে কুখ্যাত পাক জঙ্গিকে নিয়ে চম্পট দিল পাকিস্তানের মদতপুষ্ট লস্কর-ই-তোইবা। দিনের একেবারে ব্যস্ত সময়ে এই হামলায় মারা গিয়েছেন দুই পুলিশকর্মী। এক পুলিশ আধিকারিক জানিয়েছেন, শ্রীনগরের প্রধান হাসপাতালে এই দুঃসাহসিক জঙ্গি হামলার সুযোগেই এক পাক জঙ্গিকে ছিনিয়ে নিয়ে তারা পালিয়ে গিয়েছে। শহরতলির অলি-গলি দিয়ে জঙ্গিকে নিয়ে তারা পালিয়ে গিয়েছে। পালিয়ে যাওয়া ওই কট্টর লস্কর জঙ্গির নাম মহম্মদ নাভিদ জাট ওরফে আবু হানজালা। নিহত দুই পুলিশকর্মী হলেন হেড কনস্টেবল মুস্তাক আহমেদ ও কনস্টেবল বাবর আহমেদ। জম্মু-কাশ্মীর পুলিশের ডিজি এস পি বৈদ জানিয়েছেন, এটি অত্যন্ত দুর্ভাগ্যজনক ঘটনা। জঙ্গিরা তাদের একজন কট্টর সহকারীকে নিয়ে পালিয়ে যেতে সমর্থ হয়েছে। আমরা লাল সতর্কতা জারি করেছি। এই ঘটনায় জড়িতদের গ্রেপ্তার করা হবে। ঘটনার পরেই এলাকায় যান ডেপুটি ইন্সপেক্টর জেনারেল (মধ্য কাশ্মীর) গুলাম হাসান ভাট। জঙ্গি পালানোর পরেই শহর জুড়ে লাল সতর্কতা জারি করে তল্লাশি শুরু করে পুলিশ। জঙ্গি হামলায় দুই পুলিশকর্মীর মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতি ও প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ওমর আবদুল্লা।

খবরটা সম্ভবত আগাম ছিল। হাসপাতালের পার্কিং লটে আগে থেকেই অপেক্ষা করছিল জঙ্গিরা। এদিন সকালে রুটিন মেডিকেল চেক আপের জন্য জাট সহ ছয় জঙ্গিকে কারাগার থেকে শ্রীনগরের ৭০ বছরের পুরনো মহারাজ হরি সিং হাসপাতালে নিয়ে এসেছিল পুলিশ। এ ব্লকের ওপিডি-তে ওই অপরাধীদের নিয়ে যাওয়ার জন্য গাড়ি থেকে পুলিশ নামতেই শুরু হয় হামলা। জঙ্গিরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি চালাতে থাকে। জঙ্গিদের গুলিতে ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় হেড কনস্টেবল মুস্তাক আহমেদের। আর হাসপাতালে মারা যান আহত কনস্টেবল বাবর আহমেদ। সেই সুযোগে মৃত এক পুলিশের কারবাইন নিয়ে চম্পট দেয় নাভিদ জাট।

পলাতক জঙ্গি পাক পাঞ্জাবের মুলতানের বাসিন্দা। শ্রীনগরের বেশ কয়েকটি জঙ্গি হামলার ঘটনায় সে জড়িত। ২০১৪ সালের আগস্টে তাকে দক্ষিণ কাশ্মীরের কুলগাঁও থেকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। জাট টেকনিক্যাল এক্সপার্ট বলে পরিচিত। মহারাজ হরি সিং হাসপাতালটিও বিতস্তার এক শাখা নদীর ধারে অবস্থিত। এর একদিকে করণ নগর, অন্যদিকে নবাব বাজার। ফলে এমন জায়গায় পালিয়ে যাওয়া তুলনায় সহজ। জম্মু-কাশ্মীরের পুলিশের তরফে আগেই এই জঙ্গিদের শ্রীনগর জেল থেকে সরিয়ে অন্য নিরাপদ জেলে নিয়ে যাওয়ার কথা বলা হয়েছিল। কিন্তু গত বছরের ডিসেম্বরে পুলিশের ওই পদক্ষেপ আটকে দেয় সেশন কোর্ট।

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s