বাংলাদেশের লক্ষীপুরে হিন্দু গৃহবধূকে ২দিন ধরে গণধর্ষণ করলো মুসলিম দুষ্কৃতিরা

লক্ষীপুরের রামগতি উপজেলার চরগাজী ইউনিয়নের দক্ষিন টুমচর এলাকার বাসিন্দা রমেশ চন্দ্র দাসের বসত ঘরে জোরপূর্বক ঢুকে রাতভর এক হিন্দু গৃহবধূকে(২০) গণধর্ষণ করল ইসলামের অনুসারীরা। স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে পরিবারের সদস্যদের অস্ত্রের মুখে হাত পা বেঁধে ওই হিন্দু গৃহবধূকে ধর্ষণ করা হয় টানা দুই দিন। ধর্ষণের দৃশ্য  পরিবারের বাকী সদস্যদেরও দেখতে বাধ্য করা হয়। মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে টানা দুই দিন – গত ২৩ ও ২৪ জানুয়ারী, যথাক্রমে মঙ্গলবার ও বুধবার। ওই গৃহবধূ প্রবাসী স্বপন চন্দ্র দাসের স্ত্রী বলে জানা গিয়েছে।

ধর্ষণে যিনি নেতৃত্ব দিয়েছেন তার নাম বাদশা আলম(৩২)। হিন্দু মেয়েদের সর্বনাশ করাটা তার নেশা। তবে মুসলমান ধর্ষকদের ভয়ে হিন্দু পরিবারটি বাড়ি ফেলে পালিয়েছে। তাই এখনো পর্যন্ত পুলিশে কোনো অভিযোগ দায়ের হয়নি। ফলে ধর্ষকরা বুক ফুলিয়ে ঘুরে বেড়াচ্ছে। এর ফলে আশেপাশের এলাকার হিন্দু বাসিন্দাদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়েছে।

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s