রায়গঞ্জে দাঙ্গায় গ্রেপ্তার হওয়া হিন্দুদের জেল থেকে ছাড়িয়ে আনলো হিন্দু সংহতি

rayganj dangar hinduder jaminগত কুরবানী ঈদের পরের  দিন উত্তর দিনাজপুর জেলার রায়গঞ্জের আশেপাশের গ্রামগুলিতে পশুর কাটা মাথা ও রক্ত পরে থাকতে দেখা যায়। আর সে নিয়ে বিস্তীর্ণ এলাকায় হিন্দু-মুসলিম সংঘর্ষ শুরু হয়। আর সেই সংঘর্ষে আক্রান্ত হিন্দুদের পক্ষে দাঁড়িয়ে প্রতিরোধের প্রথম সারিতে ছিলেন হিন্দু সংহতির কর্মীরা। সেই দাঙ্গায় হিন্দু সংহতির কর্মী তরতাজা যুবক তোতন দাসের মৃত্যু হয়। আর সেই দাঙ্গার ঘটনায় রাড়িয়া গ্রামের বাসিন্দা হিন্দু সংহতির তিন কর্মী গ্রেপ্তার হয়। তাদেরকে গতকাল ১৩ই নভেম্বর জেল থেকে ছাড়িয়ে আনে হিন্দু সংহতি। তারা হলো মানিক মহন্ত(৩৫), রতন সরকার(৩২) ও প্রবীর দাস(২৫)। এই কর্মীরা গ্রেপ্তার হবার পর থেকে তাদের পরিবারের পাশে প্রথম থেকেই হিন্দু সংহতি দাঁড়িয়েছে। জেল থেকে বেরোনোর পর তিন কর্মীকে উপস্থিত কর্মী-সমর্থকরা মালা পরিয়ে স্বাগত জানায়।

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s