​বিধ্বংসী রণতরী মরমুগাও-এর যাত্রার সূচনা করলেন নৌসেনা প্রধান লানবা

শনিবার আনুষ্ঠানিকভাবে আরব সাগরে ভাসানো হল সম্পূর্ণ দেশজ প্রযুক্তিতে তৈরি অত্যাধুনিক বিধ্বংসী রণতরী ?মরমুগাও?। এদিন মাজগাঁও ডকে এক সংক্ষিপ্ত অনুষ্ঠানের মাধ্যমে ভারতীয় নৌবাহিনীর প্রধান অ্যাডমিরাল সুনীল লানবা ও তাঁর স্ত্রী রীনা সকাল ১১টা ৫৮ মিনিটে ?মরমুগাও?-এর যাত্রার শুভসূচনা করেন। বিধ্বংসী যুদ্ধজাহাজ নির্মাণের ক্ষেত্রে এটি বিশাখাপত্তনমের ?১৫বি? প্রকল্পের অন্তর্গত। এই ধরনের আরও চারটি বিধ্বংসী রণতরী ২০২০ থেকে ২০২৪ সালের মধ্যে ভারতীয় নৌবাহিনীতে যোগ দেবে। জানা গিয়েছে, ভারতীয় নৌবাহিনীর জন্য বিভিন্ন প্রয়োজনীয় পরীক্ষার পর ?মরমুগাও? পরিচিত হবে ?আইএনএস মরমুগাও? নামে। এই রণতরীটি ৭ হাজার ৩০০ টন ভার বহনে সক্ষম। এর সর্বাধিক গতি ৩০ নটিক্যাল মাইলের কিছু বেশি। ?এর থেকে ভূমি থেকে ভূমি, ভূমি থেকে আকাশ ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপের ব্যবস্থা রয়েছে। আছে সাবমেরিনকে ধ্বংসকারী রকেট লঞ্চার। সাবমেরিন ধ্বংসকারী অত্যাধুনিক হেলিকপ্টার বহনেও এটি সক্ষম। অ্যাডমিরাল লানবা বলেছেন, ?মরমুগাও? পুরোপুরি দেশজ প্রযুক্তিতে তৈরি, তাই এই প্রকল্প মেক ইন ইন্ডিয়া উদ্যোগকেই সমর্থন করে। এই বিধ্বংসী রণতরীর সঙ্গে বিশ্বের সেরা অত্যাধুনিক যুদ্ধজাহাজগুলির সঙ্গে তুলনীয়।

Advertisements