২০০ ছাত্রের উপর যৌন নির্যাতন, গ্রেফতার স্কুলের ইংরেজি শিক্ষক

imageকিশোর ছাত্রদের উপর নির্যাতন চালানোর অভিযোগে রাজস্থানের একটি বেসরকারি স্কুলের ইংরেজির শিক্ষক বছর সাতাশের রামিজকে গ্রেফতার করল পুলিশ। অভিযোগ, রামিজ নামে ওই শিক্ষক গত কয়েক বছর ধরে জোর করে বহু ছাত্রের উপর যৌন নির্যাতন চালিয়েছেন। ছাত্রদের বাধ্য করেন তার সঙ্গে যৌনমিলনে লিপ্ত হতে। এমনকী, সেই বিকৃত ঘটনার ভিডিও করে নিজের কাছে রেখে দিতেন রামিজ। তাঁর মোবাইল থেকে এ ধরনের ৭৬টি ভিডিও ক্লিপ উদ্ধার করেছে পুলিশ।
সম্প্রতি, রামিজের বিরুদ্ধে পুলিশে অভিযোগ দায়ের করে তাঁর দুই ছাত্র । তার পরেই তাঁকে গ্রেফতার করা হয়। বর্তমানে তিনি পুলিশ হেফাজতে রয়েছে। ১৩ই ফেব্রুয়ারী, সোমবার তাকে আদালতে পেশ করা হবে।পুলিশ জানিয়েছে, ছাত্রদের ‘ধর্ষণ’ করার সেই ভিডিও অন্য ছাত্রদের সাহায্যে মোবাইলে তুলতেন রামিজ। পুলিশের আশঙ্কা, গত ১০ বছরে প্রায় ২০০ জন ছাত্র তাঁর বিকৃত যৌন-লালসার শিকার হয়েছে। আপাতত পুলিশ ১১ জন নির্যাতিত ছাত্রকে চিহ্নিত করতে পেরেছে। তাদের প্রত্যেকেরই বয়স ১২ থেকে ১৭ বছরের মধ্যে।
ছাত্রেরা পুলিশের কাছে করা অভিযোগে জানিয়েছে, টিউশনের জন্য ওই শিক্ষক স্কুলেই ছাত্রদের উপর চাপ সৃষ্টি করতেন। তাঁর কাছে পড়তে গেলে, পরীক্ষায় ফেল করানোর হুমকি দিয়ে পড়ানোর ফাঁকে অন্য ঘরে ছাত্রদের নিয়ে গিয়ে তাদের উপর যৌন নির্যাতন চালাতেন ওই শিক্ষক। পাশাপাশি, অন্য ছাত্রদের ভয় দেখিয়ে সেই ‘জঘন্য’ কাজের ভিডিও মোবাইলে ক্যামেরাবন্দি করতে বাধ্য করতেন।
এমনই একটি ভিডিও ক্লিপ একটি ক্লোজড গ্রুপে শেয়ার করেছিলেন রামিজ। আর তা পৌঁছে যায় তাঁরই এক ছাত্রের বাবার কাছে। এর পর ওই ছাত্রের বাবা ছেলের কাছ থেকে সব কিছু জানতে পারেন। বিষয়টি তখনই সামনে আসে। তাঁর এই যৌন-বিকৃতির কথা প্রকাশ্যে আসতেই তাঁকে চাকরি থেকে বরখাস্ত করেছেন স্কুল কর্তৃপক্ষ।

Advertisements