শহরে বেআইনি অস্ত্র কারখানার হদিশ, গ্রেপ্তার ৩

pistol_webকলকাতার বুকে ব্যাঙের ছাতার মতো গজিয়ে উঠা অস্ত্র কারখানার বিরুদ্ধে বড়সড় সাফল্য পেল পুলিশ৷ গোপন সূত্রে খবর পেয়ে, ১৫ই মে (সোমবার) শহরের সন্তোষপুরে একটি বাড়িতে হানা দেয় সিআইডি ও রবীন্দ্রনগর থানার পুলিশের একটি যৌথ দল৷ পুলিশ সূত্রে খবর, ওই বাড়িটি গৌতম রায় নামের এক ব্যক্তির৷ সেখানে বেআইনি অস্ত্র তৈরি করা হত৷ ওই অভিযানে গ্রেপ্তার করা হয়েছে ৩ ব্যক্তিকে৷ উদ্ধার হয়েছে প্রচুর অস্ত্র৷
জানা গিয়েছে ধৃত মহম্মদ নসরুল, মহম্মদ ইকবাল ও মহম্মদ সাবির আলম বিহারের বাসিন্দা৷ ধৃতদের থেকে উদ্ধার করা হয়েছে ম্যাগাজিন-সহ ৩৮টি দেশি পিস্তল ও বন্দুক তৈরি করার সরঞ্জাম৷ উল্লেখ্য, গত বুধবার (১০ই মে) রাতে স্ট্র্যান্ড রোডে সিআরপিএফ ক্যাম্পের সামনে থকে গ্রেপ্তার করা হয় মোসলেম শেখ ও মহম্মদ শামসুদ নামের দুই ব্যক্তিকে৷ ধৃতদের থেকে ৭টি দেশি পিস্তল উদ্ধার করে পুলিশ৷ পরে তাদের জেরা করে হাওড়ায় একটি বাড়িতে অভিযান চালিয়ে প্রচুর দেশী বন্দুক ও কার্তুজ উদ্ধার করে পুলিশ৷ উল্লেখ্য, বিহারের মুঙ্গেরে প্রায় কুটিরশিল্পের পর্যায়ে পৌঁছে গিয়েছে দেশি বন্দুক নির্মাণ৷ চোরাই পথে এবার সেই হাতিয়ার ঢুকছে কলকাতায়৷ তারপর ছড়িয়ে পড়ছে সমস্ত রাজ্যে৷ এ নিয়ে বহুদিন থেকেই দুশ্চিন্তায় রয়েছে প্রশাসন৷
প্রসঙ্গত, কলকাতায় বড়সড় নাশকতা চালাতে পারে জেহাদি সংগঠনগুলি বলে সতর্কবার্তা জারি করেছে কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা৷ তারপরই শহর জুড়ে বাড়িয়ে তোলা হয়েছে নিরাপত্তা ব্যবস্থা৷ রেল ও মেট্রো স্টেশনে সুরক্ষা আরও মজবুত করা হয়েছে৷

Advertisements