রাতভর গুলির লড়াই, বদগামে সেনার গুলিতে খতম তিন হিজবুল জঙ্গি

image (1).jpgরাতভর গুলির লড়াইয়ের শেষে খতম তিন হিজবুল জঙ্গি। মঙ্গলবার (১১ই জুলাই) বিকালেই নিরাপত্তা বাহিনীর কাছে খবর আসে কাশ্মীরের বগদাম এলাকায় লুকিয়ে রয়েছে জনা কয়েক জঙ্গি। সেই মতো ওইদিন সন্ধে থেকেই বদগামের রাদপুগ গ্রাম ঘিরে ফেলে অভিযান শুরু করে বাহিনী। রাতভর চলে সকালে শেষ হয় গুলির লড়াই। মৃত্যু হয় তিন জঙ্গির। তবে এখনও এক জঙ্গির খোঁজে তল্লাশি চলছে বলে জানা গিয়েছে। জঙ্গিদের কাছ থেকে বেশ কিছু রাইফেল ও ম্যাগাজিন উদ্ধার করা হয়েছে।
সেনা সূত্রে খবর, নিহত জঙ্গিদের মধ্যে জাভেদ শেখ চুরপরা নারওয়াল এবং দাউদ আহমেদ সোফি মুস্তাফা আবাদ জাইনাকোট এলাকার বাসিন্দা। নিহত আরও এক জঙ্গি আকিব গুলের ঠিকানা অবশ্য জানা যায়নি। এরা তিন জনেই হিজাবুল মুজাহিদিনের সদস্য বলে জানিয়েছে সেনা।
সোমবার (১০ই জুলাই) রাত ন’টা নাগাদ অমরনাথগামী তীর্থযাত্রী বোঝাই একটি বাসে জঙ্গিদের হামলার ঘটনায় মৃত্যু হয়েছিল সাত পূণ্যার্থীর। অমরনাথ তীর্থযাত্রীদের উপর জঙ্গী হামলার ঘটনার পর থেকেই নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছিল জম্মু কাশ্মীরে। পালিয়ে যাওয়া জঙ্গীদের খোঁজে মঙ্গলবার দিনভর উপত্যকায় চিরুণী তল্লাশি চলে। বাড়ি বাড়ি ঢুকেও তল্লাশি করা হয় বেশ কিছু জায়গায়। সেই সময়ই বুদগামে কিছু জঙ্গির গা ঢাকা দিয়ে থাকার খবর আসে। এরপরেই সিআরপিএফ, রাষ্ট্রীয় রাইফেল’স এবং জম্মু-কাশ্মীরের বিশেষ অপারেশন গ্রুপ এক সঙ্গে অপারেশন শুরু করে। তবে মৃত তিন জঙ্গির সঙ্গে দু’দিন আগের হামলার কোনও যোগ রয়েছে কি না তা অবশ্য জানা যায়নি।

Advertisements