রাজস্থানে ভারত-পাক সীমান্ত থেকে আটক এক পাক গুপ্তচর

border_webপাক গুপ্তচর সন্দেহে রাজস্থান থেকে এক ব্যক্তিকে আটক করল সিআইডি এবং বর্ডার ইনটেলিজেন্স পুলিশের গোয়েন্দারা।১২ই ফেব্রুয়ারী, রবিবার জয়সলমেরের ভারত-পাকিস্তান সীমান্তের নিকটে অবস্থিত একটি গ্রাম থেকে হাজি খান নামে ওই ব্যক্তিকে আটক করা হয়।ওই ব্যক্তিকে জেরা করছে সিআইডি এবং বর্ডার ইনটেলিজেন্স পুলিশ।
আটক হাজি খানের কাছ থেকে সিম কার্ড-সহ আরও অনেক সন্দেহজনক জিনিস পাওয়া গিয়েছে। আরও কেউ তার সঙ্গে রয়েছে কি না অথবা কারা কারা তাকে সাহায্য করেছে সেটাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে।
নটেলিজেন্স পুলিশ এবং মধ্যপ্রদেশের অ্যান্টি-টেররিজম স্কোয়াড চারজনের একটি দলকে আটক করে। ওই দলটি পাক গুপ্তচর সংস্থা আইএসআইয়ের হয়ে কাজ করত। সিনিয়র অফিসার সেজে জম্মু-কাশ্মীর বা অন্যান্য সীমান্তে কর্তব্যরত সেনা আধিকারিকদের ফোন করে সেনা সংক্রান্ত তথ্য জোগাড় করাই ছিল এই দলটির কাজ। তারপর সেটি তারা পাঠাত আইএসআইকে।
এর আগে ২০১৬ সালের আগষ্ট মাসে জয়সলমের থেকে নন্দলাল নামে এক পাক গুপ্তচরকে আটক করেছিল পুলিশ। ভারতের প্রতিরক্ষা সংক্রান্ত বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ নথি তার কাছ থেকে পাওয়া গিয়েছিল। নন্দলালের কাছ থেকে মেমরি কার্ড, ভারতীয় মুদ্রায় ২০০০ টাকা এবং পাকিস্তানি মুদ্রায় ৩০ টাকা ও একটি ডায়েরি পাওয়া যায়। আইএসআইয়ের কাছ থেকে কীভাবে আর্থিক সাহায্য পেত নন্দলাল সেটাই ওই ডায়েরিতে লেখা ছিল।