বাতিল জাকির নায়েকের পাসপোর্ট

download.jpgএনআইএ-র আর্জির ভিত্তিতে বিতর্কিত ইসলামি প্রচারক জাকির নায়েকের পাসপোর্ট বাতিল করা হল। এনআইএ সূত্রে এই খবর জানা গেছে।জাতীয় তদন্তকারী সংস্থা (এনআইএ)-র আধিকারিকরা জানিয়েছেন, গত ১৩ জুলাইয়ের মধ্যে নায়েককে ব্যক্তিগত হাজিরার জন্য নোটিশ দেওয়া হয়েছিল। ওই নোটিশের জবাব না দেওয়ায় নায়েকের পাসপোর্ট খারিজ করে দিয়েছে মুম্বইয়ের আঞ্চলিক পাসপোর্ট দফতর।নায়েকের কাছে পাঠানো নোটিশে এনআইএ বলেছিল, তাঁর বিরুদ্ধে বিভিন্ন মামলায় তদন্ত চলছে। এই অবস্থায় কেন তাঁর পাসপোর্ট বাতিল হবে না, তার কারণ দর্শাতে বলা হয়েছিল ৫১ বছরের বিতর্কিত ইসলামি প্রচারককে।উল্লেখ্য, গত বছরের জানুয়ারিতে নায়েকের পাসপোর্ট পুনর্নবীকরণ করা হয়। বৈধতা ছিল ১০ বছর।নায়েকের বিরুদ্ধে সন্ত্রাস ও আর্থিক তছরুপের অভিযোগের তদন্ত করছে এনআইএ।
উল্লেখ্য, ঢাকার গুলশন বেকারিতে সন্ত্রাসবাদী হামলার পর বাংলাদেশ দাবি করে যে, হামলাকারীরা নায়েকের জিহাদের বক্তৃতায় অনুপ্রাণিত হয়েছে। এরপরই ২০১৬-র ১ জুলাই দেশ ছাড়েন নায়েক।ওই বছরেরই ১৮ নভেম্বর এনআইএ ভারতীয় দণ্ডবিধির বিভিন্ন ধারায় ও বেআইনি কার্যকলাপ (মোকাবিলা) আইনে নায়েকের বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলা রুজু করে।তাঁর সংগঠন ইসলামিক রিসার্চ ফাউন্ডেশনকে ইতিমধ্যেই বেআইনি প্রতিষ্ঠান হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে।
উল্লেখ্য, বছরভর তদন্ত চালিয়ে ইসলামিক রিসার্চ ফাউন্ডেশন ও পিস টিভির বিরুদ্ধে সাম্প্রদায়িক বিদ্বেষ ছড়ানোর প্রমাণ পাওয়ার পর নায়েককে ধরতে ইন্টারপোলের দ্বারস্থ হয় এআইএ। ইন্টারপোল তাঁর বিরুদ্ধে রেড কর্নার নোটিশ জারি করেছে।তাঁর বর্তমান ঠিকানা সম্পর্কে কোনও সঠিক তথ্য নেই।এই নোটিশ এড়াতে নায়েক ক্রমাগত তাঁর অবস্থান বদল করছেন বলে মনে করা হচ্ছে।মধ্য প্রাচ্যের খবর সংক্রান্ত একটি সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবর অনুযায়ী, নায়েককে ইতিমধ্যেই সৌদি আরবের নাগরিকত্ব দেওয়া হয়েছে। তবে এই দাবির পক্ষে উপযুক্ত তথ্যপ্রমাণ পাওয়া যায়নি

Advertisements