জাল পরিচয়পত্র সহ রোহিঙ্গাদের ধরল মণিপুর পুলিশ

আসাম সীমান্ত পেরিয়ে মণিপুরে চলে আসা ৪৬ জন রোহিঙ্গাকে আটক করল পুলিশ৷ পুলিশ জানিয়েছে, সন্দেহ হওয়ায় আটক করা হয় কয়েকজনকে৷ জেরায় তারা অসম ও বিহার থেকে আসা শ্রমিক বলে পরিচয় দেয়৷ তবে তারা কোনও পরিচয়পত্র দেখাতে পারেনি৷ কয়েকজনের কাছে জাল পরিচয়পত্র ছিল৷ পরে জেরায় তারা নিজেদের রোহিঙ্গা মুসলিম বলে স্বীকার করে নেয়৷ জানা গিয়েছে সীমান্ত পেরিয়ে প্রথমে মণিপুরের জিরিবাম জেলা হয়ে রোহিঙ্গারা প্রবেশ করেছিল৷

প্রতিবেশী রাষ্ট্র মায়ানমারের রাখাইন প্রদেশে তীব্র জাতি সংঘর্ষ চলছে৷ সেদেশের সরকারের অভিযোগ, রোহিঙ্গা মুসলিমদের জঙ্গি সংগঠন আরসা সেনাচৌকির উপর হামলা চালায়৷ গত ২৫ অগস্ট এই ঘটনার পরই পাল্টা সেনা অভিযান শুরু করে মায়ানমার সরকার৷ এরপরেই লক্ষাধিক রোহিঙ্গা মুসলিম সীমান্ত পেরিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করেছেন৷

এদিকে ভারতে রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশ রুখতে মণিপুর সংলগ্ন মায়ানমারের আন্তর্জাতিক সীমান্ত অঞ্চলে জারি হয়েছে কড়া পাহারা৷ রাজ্যের বিভিন্ন চেকপোস্টে চলছে বিশেষ তল্লাশি৷ ভারতেও রোহিঙ্গা শরণার্থী সংক্রান্ত বিষয়টি নিয়ে বিতর্ক চলছে৷ কেন্দ্র সরকারের যুক্তি অবৈধ উপায়ে ভারতে প্রবেশ করা রোহিঙ্গাদের কোনওভাবেই দেশে রাখা সম্ভব নয়৷ ভারতে ইতিমধ্যেই আশ্রয় নিয়েছেন প্রায় ৪০ হাজার রোহিঙ্গা। অন্তত ১০ হাজার রোহিঙ্গা জম্মু-কাশ্মীরের শরণার্থী শিবিরে আছেন৷ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী সম্প্রতি মায়ানমার সফর করে শরণার্থী রোহিঙ্গাদের ফেরত পাঠানোর বিষয়টি জানান৷

 

Advertisements