গুজরাত উপকূলে উপকূলরক্ষী বাহিনীর হাতে আটক সন্দেহজনক পাক নৌকা

গুজরাত উপকূলের কিছু দূর থেকে ৯ জন পাকিস্তানি নাগরিক সহ একটি সন্দেহজনক পাক নৌকা আটক করল ভারতীয় উপকূলরক্ষী বাহিনী। আরব সাগর থেকে আটক হওয়া এই নৌকাটিকে গুজরাতের পোরবন্দরে নিয়ে আসা হয়েছে। কী উদ্দেশে পাক জলযানটি গুজরাত উপকূলের কাছাকাছি এসেছিল, তা খতিয়ে দেখার জন্য পোরবন্দরেই ধৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

২ অক্টবর, রবিবার সকাল ১০টা ১৫ মিনিট নাগাদ পাক নৌকাটিকে আরব সাগর থেকে আটক করা হয়। গুজরাত উপকূলের কাছাকাছি এই পাক জলযানের সন্দেহজনক গতিবিধি দেখেই উপলকূলরক্ষী বাহিনীর জাহাজ আইসিজিএস সমুদ্র পাবককে সেখানে পাঠানো হয়। বাহিনী পাক জলযানটিকে আটক করে। যে ৯ জনকে আটক করা হয়েছে, তাঁরা নিজেদের মৎস্যজীবী বলে দাবি করেছেন। কিন্তু পাক মৎস্যজীবীরা পাকিস্তানের জলসীমা ছাড়িয়ে গুজরাত উপকূলের খুব কাছাকাছি কেন চলে এলেন, তা নিয়ে প্রশ্ন রয়েছে।

উরি হামলার পর থেকেই দেশজুড়ে নিরাপত্তা কঠোর করা হয়েছিল। পাক অধিকৃত কাশ্মীরে ঢুকে ভারত সার্জিক্যাল স্ট্রাইক করার পর দেশজুড়ে সতর্কতা আরও বাড়ানো হয়েছে। কারণ পাকিস্তানের তরফ থেকেও প্রত্যাঘাত আসার আশঙ্কা রয়েছে। সে প্রত্যাঘাত সরাসরি পাক সেনার দিক থেকে আসতে পারে। প্রত্যাঘাত জঙ্গিদের তরফ থেকেও আসতে পারে। সেই কারণেই গুজরাত উপকূলের কাছে পাক জলযানের সন্দেহজনক গতিবিধিকে হালকা ভাবে দেখছে না উপকূলরক্ষী বাহিনী।