অনন্তনাগে গুলির লড়াইয়ে মৃত্যু হিজবুল মুজাহিদিন জঙ্গির

pulwama-encounterজম্মু ও কাশ্মীরে নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে গুলির লড়াইয়ে মৃত্যু হল এক হিজবুল মুজাহিদিন জঙ্গি। হিজবুলের ওই সদস্য স্থানীয় বাসিন্দা। সদ্যই জঙ্গি সংগঠনে যোগ দিয়েছিল সে। দক্ষিণ কাশ্মীরের অনন্তনাগ জেলায় গুলির লড়াইয়ে আরও এক অজ্ঞাত পরিচয় ব্যক্তিরও মৃত্যু হয়েছে বলে নিরাপত্তা আধিকারিকরা জানিয়েছেন। গতকাল ৩রা অগাস্ট অনন্তনাগের বিজবেহরার কানিবালে একটি বাড়িতে জঙ্গিরা গা-ঢাকা দিয়েছে বলে গোয়েন্দা সূত্রে জানতে পেরে গ্রাম ঘিরে ফেলেন সেনা ও সিআরপিএফ জওয়ানরা। নিরাপত্তা বাহিনীকে লক্ষ্য করে গুলি চালাতে শুরু করে জঙ্গিরা। শুরু হয় গুলির লড়াই। প্রায় দু ঘন্টা গুলির লড়াই চলে। গুলির লড়াইয়ে ইয়াওয়ার নামে অনন্তনগরের বাসিন্দা এক জঙ্গির মৃত্যু হয়। রাতের অন্ধকারের সুযোগ নিয়ে দুই জঙ্গি চম্পট দেয়। নিরাপত্তা আধিকারিকরা জানিয়েছেন, গুলির লড়াইয়ের এক সেনা জওয়ানও জখম হয়েছেন। তবে তাঁর অবস্থা স্থিতিশীল। ইয়াওয়ার ওই এলাকায় দীর্ঘদিন ধরেই নিরাপত্তা বাহিনীকে লক্ষ্য করে পাথর ছুঁড়ত। গত মাসের প্রথম সপ্তাহে সে জঙ্গি সংগঠনে যোগ দিয়েছিল। একটি এসএলআর রাইফেল তার কাছ থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। ওই রাইফেলটি এক পুলিশ কর্মীর হাত থেকে লুঠ করা হয়েছিল। গুলির লড়াই চলাকালে এক মোটর সাইকেল আরোহীর গুলির আঘাতে মৃত্যু হয়েছে। দুই পক্ষের গুলি বর্ষণের মধ্যে চলে আসায় তার মৃত্যু হয়েছে বলে অনুমান। ওই ব্যক্তির বাইকের নম্বর প্লেট ভেঙেচুরে গিয়েছে। তাঁর কাছে কোনও পরিচয়পত্রও পাওয়া যায়নি। দুটি মোবাইল ফোন পাওয়া গিয়েছে। কিন্তু তাঁর টেলিফোন কনট্যাক্ট থেকেও পরিচয় জানা যায়নি। ওই ব্যক্তিকে শনাক্ত করতে একটি তাঁর একটি ছবি প্রকাশ করেছে স্থানীয় পুলিশ। আধিকারিকরা জানিয়েছেন, ইয়াওয়ারের দেহ শেষকৃত্যের জন্য তার পরিবারের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে।

Advertisements