পুরুলিয়ার লধুড়কা গ্রামে নির্মীয়মান দূর্গা প্রতিমা ভাঙল দুষ্কৃতি,উত্তেজনা

IMG-20170905-WA0135-511x250পুরুলিয়ার হুড়া থানার লধুড়কা গ্রামের একটি ক্লাবের নির্মীয়মান দূর্গা প্রতিমা ভাঙ্গার ঘটনাকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা ছড়াল এলাকায়। গত ৫ই সেপ্টেম্বর, মঙ্গলবার সকালে প্রথমে ঘটনার কথা জানাজানি হতেই ক্ষোভ সঞ্চারিত হয়। ওই গ্রামের নেতাজি ক্লাবের ছাউনি দেওয়া খোলা বারান্দা যেখানে মন্ডপ করে পুজো করেন ক্লাবের সভ্যরা। সেখানেই মূর্তি গড়ার কাজ হচ্ছিল। এদিন সকালে গ্রামবাসীরা দেখতে পান যে নির্মীয়মান দূর্গা, গণেশসহ অন্যান্য মূর্তি ভেঙে পড়ে রয়েছে।

খবর পেয়ে ছুটে আসেন ক্লাবের কর্তা ও সদস্যরা। অপ্রত্যাশিত এই ঘটনায় আবেগে আঘাত লাগে ধর্মপ্রাণ মানুষের মনে। মাটির ওই মূর্তি কেউ বা কারা ভেঙেছে তা নিয়ে একটা সন্দেহ তৈরি হয় তাঁদের মনে। ঘটনা নিয়ে উত্তেজনার সৃষ্টি হয় গ্রামে। ক্লাবের পক্ষ থেকে অভিযোগ জানাতে গেলে প্রথমে হুড়া থানার পুলিশ তা নিতে অস্বীকার করে বলে জানান ক্লাবের সম্পাদক অভিষেক ব্যানার্জি এবং সভাপতি মদন বাউরী।

এর পরই ক্ষোভ গিয়ে পড়ে পুলিশের উপর। পুলিশের যুক্তি ওই ঘটনাকে কেন্দ্র করে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি অক্ষুণ্ণ থাকবে না। এই নিয়ে দিন ভর চলে পুলিশের সঙ্গে বচসা। টাল বাহানার পর শেষ পর্যন্ত সন্ধ্যে নাগাদ ক্লাবের পক্ষ থেকে একটি লিখিত অভিযোগ দেওয়া থানায় এবং তা পুলিশ নিয়ে ঘটনার তদন্তের আশ্বাস দেয়। রাত থেকেই ওই ক্লাবের কাছে সিভিক ভলে‌ন্টিয়ার মোতায়েন করে হুড়া থানা।

Advertisements