ধর্মের চাপে ইস্তফা দিলেন প্রধান শিক্ষক

tehattaদেড় মাস ধরে চলতে থাকা অচলাবস্থায় কিছুতেই কাটছিল না। বন্ধ রাখতে হচ্ছিল স্কুলের স্বাভাবিক পঠনপাঠন প্রক্রিয়া। শুধু তাই নয়, স্কুলের প্রধান শিক্ষককে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকিও দিয়েছিল ধর্মীয় মৌলবাদীরা। মাত্রাতিরিক্ত চাপ সহ্য করতে না পেরে নিজের পদ থেকে ইস্তফা দিলেন তেহট্ট হাই স্কুলের প্রধান শিক্ষক উৎপল ভৌমিক।

ঘটনার সূত্রপাত গত মাসের মাঝামাঝি। স্কুলে পালন নবি দিবস পালনের অনুমতি দিতে হবে। অন্যথায় চালু রাখা যাবে না স্কুল। নতুন শিক্ষাবর্ষের শুরুতে এই নিয়ে বারবার ব্যাহত হয়েছে স্কুলের স্বাভাবিক কাজকর্ম। স্কুল খুলতে এবং এলাকার আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি বজায় রাখতে স্কুল চত্বরে মোতায়েন করা হয়েছে র‍্যাফ। তারপরেও স্বাভাবিক হয়নি পরিস্থিতি। স্কুলে সরস্বতী পুজো হলে ধর্ম নিরপেক্ষতার স্বার্থে ওই স্কুলে নবি দিবস পালনের অনুমতিও দিতে হবে। এই দাবি ঘিরে গত ডিসেম্বর মাসের ১৩ তারিখ থেকে চলছে অচলাবস্থা।

এহেন টালমাটাল পরিস্থিতিতে প্রত্যক্ষভাবে প্রবল চাপের মধ্যে পড়ে ইস্তফা দিলেন স্কুলের প্রধান শিক্ষক উৎপল ভৌমিক। চলতি সপ্তাহের শুক্রবার নিজের ইস্তফাপত্র লিখে জমা দিয়েছেন তিনি। জীবনের চরম এই সিদ্ধান্ত নেওয়ার পিছনে ধর্মীয় মৌলবাদকেই দায়ী করেছেন উৎপল বাবু।

Advertisements