ধর্মবিরোধী পোস্টের জেরে প্রাণ গেল নিরীহ তিনজনের

ফেসবুকে ধর্ম নিয়ে নিন্দাসূচক পোস্ট করার অভিযোগে প্রাণ দিতে হলো পাকিস্তানের সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের এক নিরপরাধ মহিলাকে l বিরোধী ধর্মীয় সংগঠনের উন্মত্ত জনতা আজ মহিলার বাড়ি ঢুকে তাঁকে ও তাঁর দুই নাতনিকে খুন করে l একটি শিশুর বয়স ৭ অন্য শিশুটি তার বোন l ঘটনাটি ঘটেছে ইসলামাবাদ থেকে ২২০ কিমি দুরে গুজরানওয়ালা শহরে l এই ঘটনায় ফের পাকিস্তানে সংখ্যালঘুদের উপর অত্যাচারের প্রমান পাওয়া গেল l
পুলিশ জানিয়েছে, মৃত মহিলা পাকিস্তানের আহমেদি সম্প্রদায়ভুক্ত l এই সম্প্রদায়ভুক্তরা নিজেদের মুসলিম বলে মনে করলেও ১৯৮৪ সালের এক আইন অনুযায়ী এদের অমুসলিম বলে গন্য করা হয়েছে l মুসলিমদের কাছে এরা কার্যত একঘরে হয়ে থাকতেন l পাকিস্তানের আইন অনুযায়ী আহমেদি সম্প্রদায় কোনো রকম মুসলিম ধর্মাচরণ বা প্রার্থনা সভায় অংশ নিতে পারবে না l
গোলমালের সূত্রপাত ফেসবুকের একটি বিতর্কিত পোস্টকে ঘিরে l আহমেদি সম্প্রদায়ভুক্ত এক যুবক ফেসবুকে ধর্মবিরোধী পোস্ট করেছেন l এই বিরোধিতা করে কিছু যুবক l এই খবর দাবানলের মত ছড়িয়ে পড়তেই ক্ষুব্ধ জনতা চড়াও হয় আহমেদি সম্প্রদায়ের উপর l এরই মধ্যে ১৫০ জনে একটি দল পুলিশ স্টেশনে এসে দাবি জানায়, এই ঘটনাই অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ধর্মবিরোধী মামলা রুজু করতে হবে l ইতিমধ্যেই আর এক দল জনতা এসে আহমেদি সম্প্রদায়ের বাড়িগুলিতে আগুন লাগিয়ে দেয় l ওই বয়স্ক মহিলার বাড়িতে ঢুকে তাঁকে ও দুই শিশুকে হত্যা করে l  যে যুবক এই পোস্টটি করেছিল সে অবশ্য অক্ষত রয়েছে l পুলিশের বিরুদ্ধে অভিযোগ ছিল, তান্ডব চলাকালীন নিশ্চুপ ছিল পুলিশ l

 

Advertisements

One thought on “ধর্মবিরোধী পোস্টের জেরে প্রাণ গেল নিরীহ তিনজনের

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s