স্বাস্থকর নয়,প্রচুর বিরিয়ানি নষ্ট করলো কলকাতা পুরসভা

কলকাতার রাস্তার ধারের বিরিয়ানি দোকানগুলোর বিরিয়ানির গন্ধে কলকাতার আকাশ বাতাস ম’ ম’ করে। রাস্তার ধারে বড়ো বড়ো অক্ষরে নাম লেখা থাকে- ‘তাজ বিরিয়ানি’, ‘রয়াল বিরিয়ানি’, ‘হাজি বিরিয়ানি’-সহ আরও কতশত নাম। টিফিন হোক বা সেলিব্রেশন, বিরিয়ানি খেতেই হবে। কিন্তু আমরা কি ভেবে দেখেছি সেই বিরিয়ানি আমাদের স্বাস্থ্যের পক্ষে কতটা উপকারী ? কিন্তু বিগত কয়েকমাসে কলকাতা পুরসভার খাদ্যে ভেজাল প্রতিরোধ বিভাগের কাছে বিরিয়ানি নিয়ে প্রচুর অভিযোগ জমা পড়ে। আর তারই প্রেক্ষিতে গত ২১শে সেপ্টেম্বর কলকাতার পুরসভার মেয়র পরিষদ সদস্য অতীন ঘোষের নেতৃত্বে খাদ্যে ভেজাল প্রতিরোধ বিভাগের একটি দল কলকাতার নামি বিরিয়ানি দোকানগুলিতে অভিযান চালায়। বিরিয়ানির অবস্থা দেখে তাদের চক্ষু চড়কগাছ। কোথাও অত্যন্ত নোংরা ঘরে রান্না করা হয়, কোথাওবা কর্মীরা অত্যন্ত অপরিষ্কার। আবার কোথাও কোথাও  বিরিয়ানিতে মেশানো হয়েছে ক্ষতিকারক রং, যা আমাদের শরীরে গেলে নার্ভ-এর রোগ হতে পারে। এমনকি হাতিবাগানের একটি বিরিয়ানি দোকানের বিরিয়ানিতে রং ,মেলায় রাস্তার ধারে এক হাঁড়ি বিরিয়ানি ফেলে দেন পুর আধিকারিকরা। মেয়র পরিষদ সদস্য অতীন ঘোষ জানিয়েছেন,” খাদ্যে ভেজাল রোধে আমাদের এই অভিযান আরো চলবে”।

Advertisements