পাঞ্জিপাড়ায় মন্দিরের সামনে পশুর কাটা মাথা ফেলাকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা, অবরোধ

IMG-20170911-WA0009-511x250এবারে উত্তেজনা উত্তর দিনাজপুরের গোয়ালপোখর এক নম্বর ব্লকের পাঞ্জিপাড়ায় কলোনী এলাকায়।গত ১০ই সেপ্টেম্বর, সোমবার সকালে একটি মন্দিরের সামনে এক পশুর কাটা মাথা ফেলে দিয়ে যায় দুষ্কৃতীরা। পরে পুলিশ সেটিকে উদ্ধার করে নিয়ে যায়। ঘটনা জানাজানি হতেই উত্তেজনা ছড়ায় এলাকায়। বিক্ষোভ দেখানোর পাশাপাশি অবরোধ করা হয় ৩১ নম্বর জাতীয় সড়ক। রাস্তার উপর টায়ার জ্বালিয়ে অবরোধ করেন এলাকার মানুষজন। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে আসে বিশাল পুলিশ বাহিনী। তাদের মোতায়েন করা হয় এলাকায়। গ্রামবাসীরা জানিয়েছেন,’স্থানীয় একটি মন্দিরের সামনে দুষ্কৃতীরা কোন পশুর কাটা মাথা ফেলে দিয়ে যায়। এরপর সেটাকে নিয়ে উত্তেজনা ছড়ানোর জন্য এলাকায় পথ অবরোধ করেছিল কিছু ছেলে। পরে পুলিশি হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে।’এদিকে পাঞ্জিপাড়া অঞ্চলের প্রধান লাল মহম্মদ বলেন,’সকালে একটি পলিথিনে মোড়ানো অবস্থায় কিছু পড়েছিল। সেটাকে কেন্দ্র করেই গন্ডগোল। তবে পুলিশ মোতায়েন করায় পরিস্থিতি এখন নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।’ এদিকে জেলা পুলিশ সুপার শ্যাম সিং বলেন,’গোটা ঘটনাই গুজব। কিছুই হয়নি। পুরো পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। যারা গুজব ছড়াচ্ছে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’ উল্লেখ্য কিছুদিন আগে বকরি ইদের পরের দিন রায়গঞ্জের বামন গ্রাম,রাড়িয়া এলাকায় এই ইস্যুকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা ছড়িয়েছিল। এবারে ঘটনাস্থল পাঞ্জিপাড়া।

Advertisements