জঙ্গি নাশকতার ছক, জেলা জুড়ে রেড এলার্ট জারি করল দঃ দিনাজপুর জেলা পুলিশ

imagesবাংলাদেশ সীমান্ত পেরিয়ে জঙ্গি নাশকতার ছক ভারতে। গোয়েন্দা বিভাগের সতর্কতা মিলতেই জেলা জুড়ে রেড এলার্ট জারি করল দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা পুলিশ প্রশাসন। চিরুনী তল্লাশি ও নাকা চেকিং শুরু হয়েছে সীমান্তবর্তী বিভিন্ন এলাকায়। বিস্তৃর্ণ এলাকায় কাঁটাতার না থাকার সুযোগে হিলি সীমান্তকেই করিডর হিসেবে ব্যবহার করছে জঙ্গিরা।
দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার মধ্যে রয়েছে ২৫২ কিলোমিটার ভারত-বাংলাদেশ সীমান্ত। এই সীমান্তের মধ্যে এখনও প্রায় ৩২ কিলোমিটার এলাকায় নেই কোন কাঁটাতার। বাঁশের বাতা আবার কথাও সম্পূর্ণ উন্মুক্ত রয়েছে সীমান্ত। সীমান্তে একটি পোস্ট থেকে আর একটি পোস্টের দূরত্ব প্রায় ১০০ মিটার করে থাকে। পোস্ট ভিত্তিক প্রহরা ও পেট্রলিং চললেও সুযোগ বুঝে ওর ফাঁকা দিয়েই গোরু সহ অন্যান্য সামগ্রী পাচার করতে সচেষ্ট হয় পাচারকারীরা। বহুবার বিএসএফের উপরে পাচারকারীরা একযোগে হামলা চালানোর ঘটনা দেখা গেছে। পচারকারীদের মধ্যে মিশে বাংলাদেশ থেকে ভারতে প্রবেশ করার সুযোগ নেয় নাশকতাকারীরা। এর আগে হিলি সীমান্ত দিয়েই বাংলাদেশের কুখ্যাত জঙ্গি বাচ্চু রাজাকার ভারতে ঢুকেছিল বলে খবর শিরোনামে এসেছিল। এই ধরনের আরও কিছু ঘটনা এই সীমান্ত দিয়ে ঘটেছে বহুবার। ফের হিলিকে করিডর হিসেবে ব্যবহার করে ভারত ঢুকে নাশকতা হতে পারে বলে পুলিশের গোয়েন্দা সুত্রে খবর।
সম্প্রতি গোয়েন্দা বিভাগের দেওয়া খবরের ভিত্তিতেই দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার সীমান্তবর্তী এলাকায় জোর তল্লাশি শুরু করেছে পুলিশ। হিলি ও বালুরঘাট থানার বরাবর এলাকায় ক্যাম্প করে রাতদিন চলছে তল্লাশি। প্রত্যেকটি গাড়ি ও মোটরবাইক ছাড়াও সন্দেহ ভাজন কাউকে দেখলেই তল্লাশি করা হচ্ছে। এখনও পর্যন্ত কোন সন্দেহ ভাজন না মিললেও কিছু বেআইনি সামগ্রী উদ্ধার হয়েছে তল্লাশীতে।
এ বিষয়ে দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা পুলিশ সুপার প্রসূন বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, আমাদের কাছে কিছু খবর এসেছে গোয়েন্দা বিভাগ থেকে। সেই জন্য রাস্তায় নাকাচেকিং ও বর্ডার এলাকায় রেড এলার্ট জারি করা হয়েছে। তবে নিরপত্তার স্বার্থে বিস্তারিত জানাতে রাজি হননি পুলিশ সুপার প্রসূন বন্দ্যোপাধ্যায়।