কোচবিহারের মাথাভাঙাতে কালীমূর্তি ভাঙলো মুসলিমরা,প্রতিবাদে পথ অবরোধ হিন্দুদের

কোচবিহার শহর থেকে মাথাভাঙ্গায় ঢুকতে পথেই পড়ে পঞ্চানন মোড়,স্থানীয়রা অনেকেই এটাকে সিতাই মোড় বলে ডাকে। ওই মোড়ের একদিকে চলে গেছে মাথাভাঙ্গা যাবার রাস্তা, আর একদিকে গেছে শীতলকুচি হয়ে সিতাই,দিনহাটা যাবার রাস্তা। ওই মোড়ের কালীমন্দিরে দুষ্কৃতীরা ভাঙচুর চালালো গত ২৯শে সেপ্টেম্বর ,নবমীর রাতে। স্থানীয়রা জানিয়েছেন, ওই মোড়ে আগে মুসলিমদের কোনো বসবাস ছিল না। কিন্তু বেশকিছুদিন হলো পাগলাতির ,বড়োমরিচা থেকে মুসলিমরা এসে বসবাস শুরু করেছে ওই পঞ্চানন মোড়ে। স্থানীয় রাজবংশী হিন্দুরা অভিযোগ করেছেন মূর্তি ওই মুসলিমরা ভেঙেছে। এই ঘটনা জানাজানি হবার পর স্থানীয় হিন্দুরা পঞ্চানন মোড়ে  গাছের গুড়ি ফেলে পথ অবরোধ করে। ঘটনাস্থলে বিশাল পুলিশ বাহিনী মোতায়েন করা হয়। পুলিশ এসে সতাহনীয় হিন্দুদেরকে বোঝানোর চেষ্টা করে যে রাতের অন্ধকারে কোনো পাগল এই কাজ করে থাকতে পারে। তবে এই কথায় হিন্দুরা শান্ত হয়নি । ঘটনার খবর পেয়ে শীতলকুচীর  বিধায়ক বিনয়কৃষ্ণ বর্মন ঘটনাস্থলে এসে উত্তেজিত জনতাকে দোষীদের দ্রুত গ্রেপ্তার করার আশ্বাস দেন এবং তিনি পাকা মন্দির করে দেবার আশ্বাস দিলে অবরোধ তুলে নেওয়া হয়। তবে চাপা ক্ষোভ হিন্দুদের মধ্যে এখনো বর্তমান। সে কথা আঁচ এলাকায় এখনো বিশাল পুলিশ বাহিনী মোতায়েন রয়েছে।

Advertisements