অনুমতি মেলেনি, সরস্বতী পুজো বন্ধ গৌড়বঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ে

201702011449353706_saraswati-puja-halted-in-gourbanga-university_secvpfসরস্বতী পুজো এবার বন্ধ থাকল গৌড়বঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ে। কারণ, এই বছর এখানকার পড়ুয়াদের সরস্বতী পুজো করার অনুমতি দেয়নি বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। এই বিষয় নিয়ে প্রশ্ন ওঠার পাশাপাশি কৌতূহলও ছড়িয়েছে জেলার শিক্ষামহলে। যদিও উপাচার্য জানিয়েছেন, পুজোকে কেন্দ্র করে ছাত্র সংঘর্ষের ঘটনা এড়াতেই এই সিদ্ধান্ত।

প্রতি বছরই বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে সরস্বতী পুজো করেন পড়ুয়ারা। সেই মতো এবারও পুজোর প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন তাঁরা। তৈরি হচ্ছিল প্যান্ডেল। কিন্তু, বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ সেই প্যান্ডেল খুলে ফেলার নির্দেশ দেয়। সেইসঙ্গে জানানো হয়, এ বছর বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে পুজো করা যাবে না। বাধ্য হয়েই পুজো বন্ধ করে দেন ছাত্রছাত্রীরা। এরপর অবশ্য নিজেদের উদ্যোগে বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরের বাইরে পড়ুয়াদের দুটি দল পুজো করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের ছাত্র প্রসেনজিৎ ঘোষ বলেন, এ বছর তাঁদের বলা হয়, বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে পুজো করা যাবে না। তাই তাঁরা পুলিশ ও ইংরেজবাজার পৌরসভার অনুমতি নিয়ে গেটের বাইরে পুজো করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

ওই বিশ্ববিদ্যালয়ের আরেক ছাত্র ও তৃণমূল ছাত্র পরিষদ নেতা আক্রাম আলি বলেন, প্রতিবারই তাঁরা সংগঠনের পক্ষ থেকে সরস্বতী পুজোর আয়োজন করেন। এবারও তাঁরা পুজোর আয়োজন করছিলেন। প্যান্ডেল বানানোর কাজও শুরু হয়েছিল। হঠাৎ উপাচার্য তাঁদের প্যান্ডেল খুলে নেওয়ার নির্দেশ দেন।

গৌড়বঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য গোপালচন্দ্র মিশ্র এ বিষয়ে বলেন, “রাজ্য সরকারের নির্দেশে এই মুহূর্তে এই বিশ্ববিদ্যালয়ে কোনও ছাত্র সংগঠন নেই। নেই কোনও ওয়েলফেয়ার কমিটিও। তাই বিশ্ববিদ্যালয়ে এখন পড়ুয়াদের একাধিক গোষ্ঠী। আর বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে পুজোর অনুমতি দিলে সংঘর্ষ অনিবার্য। যে কারণেই এবার বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে পুজোর অনুমতি দেওয়া হয়নি।”

তবে, প্রশ্ন উঠেছে অন্য জায়গায়। খোদ মুখ্যমন্ত্রী যেখানে পড়ুয়াদের সরস্বতী পুজো করতে উৎসাহ দিচ্ছেন। সেখানে গৌড়বঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের পুজোর অনুমতি না দেওয়ার সিদ্ধান্ত কতখানি যুক্তিযুক্ত। তবে কি পড়ুয়াদের গোলমালের দায় এড়াতেই এই সিদ্ধান্ত ? যদিও, আজ সকাল থেকে বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে মোতায়েন রয়েছে পুলিশ। জানা গেছে, বিশ্ববিদ্যালয়ের আবেদনেই সেই পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

Advertisements