লাদাখ থেকে পাকিস্তানকে মেরে তাড়ায় ভারতীয় সেনা, কার্গিল বিজয় দিবসে শহিদ স্মরণে মোদী

MODI-KARGIL.jpgকার্গিল বিজয় দিবসে শহিদ জওয়ানদের শ্রদ্ধা জানালেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী । ট্যুইটারে তিনি বলেন, কার্গিল যুদ্ধে অসম সাহসের সঙ্গে লড়াই করে দেশের সন্মান রক্ষা করেছেন জওয়ানরা । নিরাপত্তা দিয়েছেন দেশের মানুষকে ।
তিনি আরও বলেন, ভারতের সেনা বাহিনীর শক্তির পরিচয় দেয় কার্গিল বিজয় দিবস । দেশকে সুরক্ষিত রাখতে সেনা বাহিনী যেভাবে লড়াই করেছে, তাদের সেই আত্মবলিদানের কথাও স্মরণ করায় কার্গিল বিজয় দিবস ।
প্রত্যেক বছর ২৬ জুলাই পালন করা হয় কার্গিল বিজয় দিবস ।পাকিস্তানি সেনার সঙ্গে লড়াই করে যেভাবে ভারতের সন্মান অক্ষুন্ন রাখেন জওয়ানরা, তাঁদের সেই কৃতিত্বকে স্মরণ করায় কার্গিল বিজয় দিবস ।
১৯৯৯ সালে লাদাখের বেশ কিছু অংশ জোর করে দখল করার চেষ্টা করে পাকিস্তানি সেনা । পাক সেনাদের সঙ্গে লড়াই করে লাদাখ রক্ষা করার ভারতীয় সেনার সেই কীর্তিকেই স্মরণ করায় কার্গিল বিজয় দিবস । ১৯৯৯ সালে যখন লাদাখে একের পর এক ভারতীয় পোস্ট জোর করে দখলের চেষ্টা করে পাকিস্তানি সেনা, তখন শুরু হয় যুদ্ধ । লাদাখ থেকে পাক সেনাকে হঠিয়ে পোস্ট দখল করেন ভারতীয় জওয়ানরা । ১৪ জুলাই পাকিস্তানি সেনাকে ফেরত পাঠানো হলেও, তত্কালীন প্রধানমন্ত্রী অটল বিহারি বাজপায়ী কার্গিল দখল মুক্ত করার সরকারি ঘোষণা করেন ২৬ জুলাই ।
ওই যুদ্ধে কমপক্ষে ৪৫০ জন ভারতীয় সেনা প্রাণ হারান । আহত হন কমপক্ষে ১৩ হাজার জওয়ান । ওই যুদ্ধে পাকিস্তানের ৩ হাজার জওয়ানের প্রাণ যায় বলে দাবি করে ইসলামাবাদ ।
প্রসঙ্গত ১৯৯৯ সালে কার্গিল যুদ্ধের আগে পাকিস্তানের সঙ্গে আরওবার লড়াই করে ভারত । সালটা ১৯৭১ । ওই সালে স্বাধীন বাংলাদেশ গঠন করতে পাক সেনার বিরুদ্ধে বিদ্রোহ ঘোষণা করে ভারতীয় সেনা ।

Advertisements