মহিলাদের যৌন চাহিদা কমাতে আজব বিধান ইমামের

hijab-girl_webইসলামে যৌনতা নিয়ে প্রচুর ট্যাবু রয়েছে। কিন্তু ধর্মের গণ্ডিতে তো মানুষের শারীরিক চাহিদাকে বাধা যায় না। কিন্তু মার্কিন মুলুকের ভার্জিনিয়ার এক ইমাম ফের ধর্মের অজুহাত দেখিয়ে মহিলাদের যৌনতাকে দমানোর এক আজব নিদান দিলেন। সাফ জানিয়ে দিলেন, নারীর যৌন উত্তেজনা কমাতে যোনিচ্ছেদই সঠিক উপায়। সমাজ ও ধর্মের তাগিদে যোনিচ্ছেদকে বাধ্যতামূলক করার নিদান দিলেন ইমাম শাকের এল সায়েদ। ভার্জিনিয়ার ফেয়ারফ্যাক্স কাউন্টির আল-হিজরা মসজিদের ইমামের মতে, যোনিচ্ছেদ হলেই মহিলাদের অতি কামোত্তেজক হতে প্রশমিত করবে।
সম্প্রতি, মসজিদের নিজস্ব টিভি চ্যানেলের ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। সেই ভিডিওতেই ইমাম এহেন নিদান দিয়েছেন। তিনি বলেছেন, মহিলাদের যৌন উত্তেজনা কমাতে তাঁদের সবচেয়ে যৌন সংবেদনশীল অঙ্গকে কেটে বাদ দেওয়ার উচিত। তিনি আরও সতর্ক করেছেন, সমাজে মহিলাদের যৌন চাহিদা সমস্যা ডেকে আনতে পারে। তাই এমন অতি যৌন উত্তেজনাকে প্রশমিত করতে হবে। মহিলারা এক বা একাধিক পুরুষ সঙ্গীতে সন্তুষ্ট হন না। কিন্তু ইমামের বক্তব্যকে উড়িয়ে দিয়েছে মসজিদ কর্তৃপক্ষ। মসজিদের বোর্ড একটি বিবৃতিতে জানিয়েছে, যোনিচ্ছেদ প্রথাকে কর্তৃপক্ষ কোনওভাবেই সমর্থন করে না। মহিলাদের যৌন চাহিদার সঙ্গে যোনিচ্ছেদ প্রথার প্রসঙ্গ টেনে আনার জন্য ইমামকে তুলোধোনা করেছে কর্তৃপক্ষ।