ছত্তিশগড়ের দান্তেওয়াড়ায় হাজার বছরের পুরনো গণেশ মূর্তি ভাঙল মাওবাদীরা

ganesha-idol-515x395গত ২৮ জানুয়ারী  ছত্তিশগড়ের দান্তেওয়াড়ায় হাজার বছরের প্রাচীন একটি গণেশ মূর্তি ভাঙচুর হওয়ায় শোরগোল। ঢোল আকৃতির পার্বত্য শ্রেণির ওপর বসানো মূর্তিটি নবম বা দশম শতকের নাগবংশী সাম্রাজ্যের সময়কার। সেটি দেখতে পর্যটক, দর্শনার্থীদের ভিড় লেগেই থাকে। দান্তেওয়াড়ায় দীর্ঘদিন হল সমান্তরাল প্রশাসন চালাচ্ছে মাওবাদীরা। ঢোলকল পাহাড়ের মাথায় বসানো গণেশ মূর্তিটি ভাঙার পিছনে তারা ছাড়া আর কেউ থাকতে পারে না বলে দৃঢ় বিশ্বাস পুলিশের।

স্থানীয় গ্রামবাসীরা জানিয়েছেন, কয়েকদিন আগে ওই পাহাড়ি রাস্তায় মাওবাদীদের আনাগোনা নজরে পড়ে তাঁদের। তাঁরা শনিবার এলাকায় গিয়ে দেখেন, মূর্তিটি উধাও। খবর পেয়েই ছুটে আসে পুলিশ, প্রশাসনের টিম। দান্তেওয়াড়ার পুলিশ সুপার কামলোচন কাশ্যপ, কালেক্টর সৌরভ কুমারও সেখানে যান। অনুসন্ধান করে নজরে পড়ে, ভাঙাচোরা মূর্তিটি পাহাড়ের মাথা থেকে প্রায় হাজার ফুট নীচে পড়ে আছে। কাশ্যপ বলেন, তদন্ত শুরু হয়েছে।

পুলিশের ধারণা, গণেশ মূর্তির টানে ওখানে বাইরের লোকের আনাগোনায় বিপদের আশঙ্কা করছিল মাওবাদীরা, পাছে তাদের গতিবিধি কেউ টের পেয়ে যায়! ইনফর্মাররাও এমনই জানিয়েছিল। তাই ওখানে যাতে দর্শনার্থী, পর্যটকরা আর না-ই আসে, সেজন্যই তারা মূর্তিটা ভেঙেছে।

৪ ফুটের মূর্তিটি চুরি করার চেষ্টা হয়েছিল, এমন ধারণা খারিজ করে দিয়েছে পুলিশ।

দান্তেওয়াড়ার ফরাসপোল থানা থেকে ১৪ কিমি দূরে গভীর জঙ্গল থেকে ওই পর্বতশ্রেণির শুরু। রায়পুর থেকে ৪৫০ কিমি দূরে। কোনও যানবাহনের পথ নেই। পায়ে হেঁটেই যেতে হয়।

ঘটনার তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে ছত্তিশগড়ের পর্যটন দপ্তরও।

Advertisements